পেঁয়াজের মূল্য কবে কমবে বলা মুশকিল বললেন বাণিজ্যমন্ত্রী

অর্থনীতি

Sharing is caring!

নিজস্ব প্রতিবেদক
দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম কবে কমবে- তা বলা মুশকিল উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, পেঁয়াজ উৎপাদন ব্যাহত না হলে ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহ নাগাদ দাম স্বাভাবিক হয়ে আসবে। পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে মিসর, আজারবাইজান, পাকিস্তান ও উজবেকিস্তান থেকে পেঁয়াজ আমদানি করা হচ্ছে। এরই মধ্যে এলসি খোলা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

রবিবার (১ ডিসেম্বর) বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ৬ষ্ঠ বৈঠক শেষে সন্ধ্যায় সংসদের মিডিয়া সেন্টারে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় বিমানে ২৫০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ আমদানি করে আমরা ৪৫ টাকা দরে মানুষকে খাওয়াচ্ছি বলে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের এমন পরিস্থিতিতে পড়তে হয়েছে ভারত আকস্মিকভাবে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করায়। মহারাষ্ট্রের নির্বাচন সামনে রেখে ভারত আকস্মিকভাবে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এ জন্যই এ অবস্থা হয়েছে।

সংসদীয় স্থায়ী কমিটি নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের বর্তমান চাহিদা, দাম, আগামী সময়ের চাহিদা নিরূপণের জন্য পণ্য দ্রব্যের আমদানিকারকদের সঙ্গে মন্ত্রণালয় বৈঠক করার সিদ্ধান্ত নেয় বলে জানা গেছে।

বৈঠকে বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশন (সংশোধন) বিল, ২০১৯ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চূড়ান্ত করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। এছাড়া ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কার্যক্রম, চা বোর্ডের কার্যক্রম, প্রধান আমদানি ও রপ্তানি নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ের সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

কমিটির সভাপতি তোফায়েল আহমদের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি ছাড়াও এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন, মোহাম্মদ হাছান ইমাম খান, সেলিম আলতাফ জর্জ এবং সুলতানা নাদিরা অংশ নেন। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, ট্যারিফ কমিশনের চেয়ারম্যান, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধানসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।